• বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:৪২ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
দ্বাদশ সংসদের দ্বিতীয় অধিবেশন বসছে ২ মে আপাতত মার্জারে যাচ্ছে ১০ ব্যাংক, এর বাইরে নয়: বাংলাদেশ ব্যাংক রাজধানীর অতি ঝুঁকিপূর্ণ ৪৪ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ভবন খালির নির্দেশ চলতি অর্থবছরে প্রবৃদ্ধি হবে ৬.১ শতাংশ কৃচ্ছ্রসাধনে আগামী বাজেটেও থোক বরাদ্দ থাকছে না নতুন যোগ হচ্ছে ২০ লাখ দরিদ্র প্রার্থী হচ্ছেন বিএনপি জামায়াত নেতারাও কিস্তির সময় পার হলেই মেয়াদোত্তীর্ণ হবে ঋণ বিভেদ মেটাতে মাঠে আওয়ামী লীগ নেতারা রেমিট্যান্সে সুবাতাস, ১২ দিনে এলো ৮৭ কোটি ডলার বাংলাদেশ ও চীনের বন্ধুত্বপূর্ণ পথচলা হয়ে উঠুক আরো শক্তিশালী বিএনপি এদেশের সাম্প্রদায়িকতার বিশ্বস্ত ঠিকানা: ওবায়দুল কাদের আজ খুলছে অফিস-আদালত-ব্যাংক-বিমা হাওরে বিশ্বের দীর্ঘতম আলপনা সমৃদ্ধ ও স্মার্ট ভবিষ্যৎ নির্মাণে একযোগে কাজ করার আহ্বান অর্থ প্রতিমন্ত্রীর বাংলাদেশি জাহাজ ছিনতাই: সোমালিয়ার ৮ জলদস্যু গ্রেপ্তার ইরান-ইসরাইল উত্তেজনা নিরসন ও গাজায় হত্যাযজ্ঞ বন্ধ চায় বাংলাদেশ: পররাষ্ট্রমন্ত্রী নতুন স্বপ্ন, প্রত্যাশা আর সম্ভাবনা নিয়ে এলো ১৪৩১ পয়লা বৈশাখে র‌্যালি করবে আওয়ামী লীগ চালের বস্তায় লিখতে হবে মূল্য-জাত

৭ মাসে ইউরোপে পোশাক রপ্তানি বেড়েছে ১৫ শতাংশ

সিরাজগঞ্জ টাইমস / ১০৩ বার পড়া হয়েছে।
সময় কাল : বুধবার, ১ মার্চ, ২০২৩

মন্দার বাজারে চলতি অর্থবছরের জুলাই থেকে জানুয়ারি পর্যন্ত বাংলাদেশের তৈরি পোশাক পণ্য বিশ্ববাজারে রপ্তানি বেড়েছে। এরমধ্যে সবচেয়ে বেশি পোশাক পণ্য রপ্তানি হয়েছে ইউরোপের বাজারে। দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে, তৃতীয় যুক্তরাজ্য এবং চতুর্থ অবস্থান রয়েছে কানাডার বাজার। রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) সবশেষ তথ্যে এই চিত্র উঠে এসেছে। ইপিবির তথ্য মতে, ২০২২-২৩ অর্থবছরের জুলাই-জানুয়ারি অর্থাৎ গত ৭ মাসে ইউরোপীয় ইউনিয়নে বাংলাদেশের পোশাক রপ্তানি বেড়েছে ১৫.৪ শতাংশ। ২০২১-২২ অর্থবছরে এই সময়ে ইউরোপের বাজারে ১১.৯৪ বিলিয়ন ডলার পরিমাণ পোশাক পণ্য রপ্তানি হয়েছিল। সেখান থেকে প্রায় ২ বিলিয়ন ডলার বেড়ে ১৩.৭৩ বিলিয়ন ডলারে দাঁড়িয়েছে। অর্থাৎ চলতি অর্থবছরের ১ হাজার ৩৭৩ কোটি ৯৭ লাখ ৪০ হাজার পোশাক পণ্য গত ৭ মাসে রপ্তানি হয়েছে। যা আগের বছরে ছিল ১ হাজার ১৯৪ কোটি ৩০ লাখ ৪০ হাজার ডলারে। এরমধ্যে সবচেয়ে বেশি রপ্তানি হয়েছে জার্মানিতে।

দেশটিতে আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় মাত্র ০.৮৩ শতাংশ বেড়ে পোশাক পণ্য রপ্তানি হয়েছে ৪.০৬ বিলিয়ন ডলার। এরপর স্পেন এবং ফ্রান্সেও রপ্তানি বেড়েছে যথাক্রমে ১৮.১৮ শতাংশ এবং ১৮.৭৪ শতাংশ। অন্যান্য প্রধান ইইউ দেশ, যেমন ইতালিতে সাড়ে ৫৭ শতাংশ, অস্ট্রিয়াতে ৩২.৯৩ শতাংশ, নেদারল্যান্ডসে ৩২.৪১ শতাংশ এবং সুইডেনে পোশাক পণ্য রপ্তানি বেড়েছে ২৩.২৮ শতাংশ।

ইউরোপের পাশাপাশি রপ্তানি বেড়েছে যুক্তরাজ্য ও কানাডার বাজারে। তবে কমেছে যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে। পরিসংখ্যান মতে, যুক্তরাজ্য এবং কানাডায় বাংলাদেশের পণ্য রপ্তানি বেড়েছে ১৪.৪৭ শতাংশ এবং ১৯.২৫ শতাংশ। যুক্তরাজ্যের বাজারে চলতি অর্থবছরের ৭ মাসে রপ্তানি হয়েছে ২৯৩ কোটি ২২ লাখ ৭০ হাজার ডলার পণ্য, যা আগের বছর ছিল ২৫৬ কোটি ১৬ লাখ ৪০ হাজার ডলার। আর কানাডার বাজারে চলতি বছরে রপ্তানি হয়েছে ৮৬ কোটি ৫৪ লাখ ২০ হাজার ডলার পরিমাণ পণ্য, যা আগের অর্থবছরের একই সময়ে ছিল ৭২ কোটি ৫৭ লাখ ৪০ হাজার ডলার পরিমাণ পণ্য।
অপর দিকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে চলতি অর্থবছরের ৭ মাসে পোশাক পণ্য রপ্তানি হয়েছে ৪.৯৮ বিলিয়ন ডলার বা ৪৯৮ কোটি ৭০ লাখ ১০ হাজার ডলারে, যা ২০২১-২২ অর্থবছরের একই সময়ে রপ্তানি হয়েছিল ৫.৮ বিলিয়ন অর্থাৎ ৫০৮ কোটি ৭৭ লাখ ৪০ হাজার ডলার। অর্থাৎ আগের বছরের তুলনায় ১.৯৮ শতাংশ রপ্তানি আয় কমেছে।

প্রচলিত বাজারের পাশাপাশি ২০২১-২২ অর্থবছরের তুলনায় ২০২২-২৩ অর্থবছরের অপ্রচলিত বাজারে রপ্তানি ৩.৬৭ বিলিয়ন ডলার থেকে ৩৩.৪৪ শতাংশ বেড়ে ৪.৮৯ বিলিয়ন ডলারে উন্নীত হয়েছে।
এরমধ্যে ২০২২-২৩ অর্থবছরের জুলাই-জানুয়ারিতে জাপানে আমাদের রপ্তানি ৯২০.২৬ মিলিয়ন ডলারে পৌঁছেছে। যা আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় ৪৫.৯২ শতাংশ বেড়েছে। উচ্চ প্রবৃদ্ধিসহ অন্যান্য অপ্রচলিত বাজারগুলো হলো- মালয়েশিয়া ৯২.৭৭ শতাংশ, মেক্সিকো ৪২.৭০ শতাংশ, ভারত ৫৮ শতাংশ, ব্রাজিল ৬৪.১৪ শতাংশ এবং দক্ষিণ কোরিয়া ৩৭.৩৯ শতাংশ বেড়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর