• মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ০৪:৪২ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
তথ্যপ্রযুক্তি খাতে করারোপ হচ্ছে না ঢাকায় ব্যাটারিচালিত রিকশা চলতে বাধা নেই টেলিটক, বিটিসিএলকে লাভজনক করতে ব্যবস্থা নেয়ার সুপারিশ ভারত থেকে ২শ কোচ কেনার চুক্তি বেসরকারি কোম্পানি চালাতে পারবে ট্রেন দেশে মাথাপিছু আয় বেড়ে ২৭৮৪ ডলার ৫ জুন বাজেট অধিবেশন শুরু চালু হচ্ছে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক শান্তি পুরস্কার বুদ্ধ পূর্ণিমা অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছা বার্তা পাঠ করলেন বিপ্লব বড়ুয়া ইরানের প্রেসিডেন্টের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক নিত্যপণ্যের বাজার কঠোর মনিটরিংয়ের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর উত্তরা থেকে টঙ্গী মেট্রোরেলে হবে নতুন ৫ স্টেশন এমপিও শিক্ষকদের জন্য আসছে আচরণবিধি সরকার ই-বর্জ্য ব্যবস্থাপনা উন্নত করতে কাজ করছে: পরিবেশমন্ত্রী বাংলাদেশে বাণিজ্য ও বিনিয়োগ সম্প্রসারণে আগ্রহী কানাডা মেট্রোরেলে ভ্যাট এনবিআরের ভুল সিদ্ধান্ত ২৫ মে বঙ্গবাজার কমপ্লেক্সের নির্মাণ কাজের উদ্ভোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী সাগরে মাছ ধরা ৬৫ দিন বন্ধ বান্দরবানে যৌথ বাহিনীর অভিযানে তিনজন নিহত বঙ্গবন্ধু ‘জুলিও কুরি’ পদক নীতিমালা মন্ত্রিসভায় উঠছে

৫০০ পেশাজীবী পাবে সুবর্ণ জয়ন্তী বৃত্তি : মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী

সিরাজগঞ্জ টাইমস / ৬৩ বার পড়া হয়েছে।
সময় কাল : শুক্রবার, ১৮ নভেম্বর, ২০২২

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী বলেছেন, ভারতীয় সরকারের আইটেক (ইন্ডিয়ান টেকনিক্যাল অ্যান্ড ইকোনমিক কো‌-অপারেশন) প্রগ্রামের আওতায় এ বছর ৫০০ পেশাজীবী ভারতে বিভিন্ন বিষয়ে শিক্ষা ও প্রশিক্ষণ লাভের সুযোগ পাবেন। বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে এ বৃত্তি প্রদান করা হচ্ছে। আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজধানীর কাকরাইলের ইনস্টিটিউট অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স, বাংলাদেশ (আইডিইবি) মিলনায়তনে ঢাকাস্থ ভারতীয় হাইকমিশন কর্তৃক ৫৮তম আইটেক দিবস ২০২২ উদযাপন উপলক্ষে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আ ক ম মোজাম্মেল হক এ কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘ভারতীয় সরকার অনেক বছর ধরে বাংলাদেশের শিক্ষার্থী ও পেশাজীবীদের বিভিন্ন বিষয়ে জ্ঞান ও দক্ষতা বৃদ্ধিতে বিভিন্ন বৃত্তি ও প্রশিক্ষণ কর্মসূচির সুযোগ প্রদান করছে। আইআইটিএস, এন‌আইটিএসের মতো ভারতের বিখ্যাত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো প্রযুক্তিগত শিক্ষা ও প্রশিক্ষণে আগ্রহী বাংলাদেশসহ বিশ্বের সেরা প্রতিভাদের আকর্ষণ করে আসছে। ‘

এ সময় তিনি ভারতীয় সরকারের আইসিসিআর ও মুক্তিযোদ্ধা বৃত্তির কথাও তুলে ধরেন। তিনি জানান, বাংলাদেশ থেকে এখন পর্যন্ত সাড়ে চার হাজারের বেশি পেশাজীবী আইটেক প্রগ্রামের আওতায় প্রশিক্ষণ ও শিক্ষা লাভ করেছে। ভারতীয় হাইকমিশনার প্রণয় ভার্মা বলেন, ‘আইটেক প্রগ্রামে বর্তমান বাংলাদেশসহ ১৬০টি দেশের পেশাজীবীরা বিভিন্ন প্রশিক্ষণ কোর্সে অংশগ্রহণ করছে। এতে এখন পর্যন্ত ২২০০০ ব্যক্তিকে প্রশিক্ষণ দেওয়া সম্ভব হয়েছে। ‘

তিনি আরো বলেন, ‘স্বাভাবিকভাবেই প্রতিবেশী বাংলাদেশ আমাদের সবচেয়ে ঘনিষ্ঠ উন্নয়ন সহযোগী। গত কয়েক বছরে বাংলাদেশে আমাদের উন্নয়ন অংশীদারত্ব আমাদের পারস্পরিক সম্পৃক্ততার কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয়েছে। ‘ এই বছর সুবর্ণ জয়ন্তী বৃত্তি উন্মোচনকে তিনি একটি উদাহরণ হিসেবে বর্ণনা করে বলেন, ‘এখানে বাংলাদেশ প্রতিবছর আইটেকের জন্য ৫০০টি আসনপ্রাপ্ত হয়। এ ছাড়া বাংলাদেশ সরকারের প্রয়োজন অনুসারে সরকারি কর্মকর্তাদের জন্য বেশ কিছু টেইলর-মেড প্রগ্রাম আয়োজন করা হয়। ‘

অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন আইডিইবির সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার এ কে এম এ হামিদ। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন আইটেক অ্যালামনাই ও সরকারি তিতুমীর কলেজের গণিত বিভাগের প্রভাষক শেখ নাজিয়া জাহান। অনুষ্ঠানে আইটেক অ্যালামনাইরা তাঁদের অভিজ্ঞতা বর্ণনা করেন। অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে সংক্ষিপ্ত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর