• বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১:১৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
ঢাকা-রোম ফ্লাইট: সহযোগিতার আশ্বাস ইতালির রাষ্ট্রদূতের ভারত সীমান্তে চালু হচ্ছে আরেকটি স্থলবন্দর ২৬৩ জন সাংবাদিকের জন্য ২ কোটি ৩ লাখ টাকা অনুমোদন শাহজালাল বিমানবন্দরের তৃতীয় টার্মিনাল: এপ্রিলেই শেষ শতভাগ কাজ বাণিজ্যমেলায় ৩৯১ কোটি টাকার রপ্তানি আদেশ বাংলাদেশের সঙ্গে যৌথ প্রতিরক্ষা সামগ্রী উৎপাদনে যেতে চায় ভারত দই বিক্রেতা জিয়াউল হকের স্বপ্ন পূরণের ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার ইউরোপ জয় বাংলাদেশ ও ঘানা ব্যবসা-বাণিজ্য বাড়াতে সম্মত একুশ মাথা নত না করতে শিখিয়েছে ভাষাশহীদদের প্রতি রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা শূন্য পদে দ্রুত নিয়োগে জনপ্রশাসনের তাগিদ কক্সবাজার সুগন্ধা সৈকতকে ‘বঙ্গবন্ধু বিচ’ নামকরণের নির্দেশ পেঁয়াজ রপ্তানির অনুমতি দিয়েছে ভারত দুই শিশুর মৃত্যুর কারণ অনুসন্ধানে আইইডিসিআর মনোনয়ন বৈধ সব প্রার্থীর শ্রদ্ধা ও স্মরণে প্রস্তুত কেন্দ্রীয় শহিদ মিনার পরিবর্তন আসছে বিধিমালা ও আচরণবিধিতে সর্বজনীন পেনশন স্কিমে অংশগ্রহণে আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে নির্দেশ স্মার্ট ভূমিসেবা বাস্তবায়নে ১০০ দিনের কর্মসূচি নেওয়া হচ্ছে

হজ প্যাকেজ সহনীয় পর্যায়ে আনার চিন্তা করা উচিত : হাইকোর্ট

সিরাজগঞ্জ টাইমস / ৩৭ বার পড়া হয়েছে।
সময় কাল : বৃহস্পতিবার, ১৬ মার্চ, ২০২৩

দেশের বেশিরভাগ মানুষ মধ্যবিত্ত। তাদের অনেকের ইচ্ছা থাকলেও হজ করার মতো সামর্থ্য থাকে না। ঘোষিত হজ প্যাকেজ বেশিরভাগ মধ্যবিত্তের সামর্থ্যরে বাইরে। গতকাল এ সংক্রান্ত রিট শুনানিতে রাষ্ট্র্রপক্ষকে উদ্দেশ করে এসব কথা বলেন বিচারপতি কে এম কামরুল কাদের ও বিচারপতি মোহাম্মদ আলীর সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ। শুনানির পর ঘোষিত হজ প্যাকেজ সহনীয় পর্যায়ে আনতে সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলতে রাষ্ট্রপক্ষকে মৌখিকভাবে নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। আদালত বলেছেন, মধ্যবিত্তের ইচ্ছা-আকাক্সক্ষা, সামর্থ্যরে কথা বিবেচনা করে যতটুকু সম্ভব হজ প্যাকেজ সহনীয় পর্যায়ে আনার বিষয়টি সরকারের চিন্তা করা উচিত।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী গাজী মো. মহসীন, রিটকারী আইনজীবী আশরাফ-উজ-জামান। তাদের সঙ্গে ছিলেন আইনজীবী আজিমুদ্দিন পাটোয়ারী ও ইয়াসিন আলফাজ। রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন অ্যাটর্নি জেনারেল এএম আমিন উদ্দিন, ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এবিএম আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ বাশার।

পরে আইনজীবী আজিমুদ্দিন পাটোয়ারী বলেন, রিটের শুনানি এক সপ্তাহ মুলতবি রেখে আদালত অ্যাটর্নি জেনারেলকে বলেছেন, সরকারের পক্ষে যতটুকু সম্ভব ঘোষিত হজ প্যাকেজের খরচ বা মূল্য কমাতে। এর জন্য সরকারের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে অ্যাটর্নি জেনারেলকে কথা বলতে বলেছেন।

অযৌক্তিক, অতিরিক্ত খরচ কমিয়ে সরকার ঘোষিত হজ প্যাকেজ পুনর্নির্ধারণ করতে গত ৬ মার্চ বাংলাদেশ, সৌদি আরব সরকারসহ বিভিন্ন দেশের প্রেসিডেন্ট ও সরকার প্রধানকে আইনি নোটিস পাঠান সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী আশরাফ-উজ-জামান। কিন্তু এ বিষয়ে দৃশ্যমান পদক্ষেপ দেখতে না পেয়ে গত ১২ মার্চ তিনি হাইকোর্টে রিট করেন। রিটে ঘোষিত হজ প্যাকেজের বৈধতা এবং হজযাত্রায় আন্তর্জাতিক সব এয়ারলাইনস না রাখার সিদ্ধান্তের বৈধতা প্রশ্নে রুল চাওয়ার পাশাপাশি ঘোষিত হজ প্যাকেজের মূল্য পুনর্নির্ধারণের নির্দেশনা চাওয়া হয়।

রিটে বিবাদী করা হয়- ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সচিব, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সচিব, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক, হজ এজেন্সি অ্যাসোসিয়েশনের বাংলাদেশ-হাব ও বাংলাদেশে নিযুক্ত সৌদি আরবের রাষ্ট্রদূতকে। গত মঙ্গলবার সে রিটেই আংশিক শুনানি হয়। শুনানিতে হজ প্যাকেজের মূল্য কিসের ভিত্তিতে নির্ধারণ করা হয়েছে, সে বিষয়ে প্রশ্ন তোলেন আদালত। তখন সহকারী অ্যাটর্নি জেনারলে মোহাম্মদ আওলাদ হোসেন আদালতের কাছে সময় চাইলে আদালত শুনানি মুলতবি করেন।

বিমান ভাড়া কমানোর সুপারিশ সংসদীয় কমিটির হজযাত্রীদের বিমান ভাড়া ১ লাখ ৯৭ হাজার ৭৯৭ টাকা থেকে কমিয়ে দেড় লাখ টাকা করার সুপারিশ করেছে ধর্ম মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটি। গতকাল জাতীয় সংসদ ভবনে সংসদীয় কমিটির বৈঠকে এই সুপারিশ করা হয়। বৈঠক শেষে কমিটির সদস্য সৈয়দ নজিবুল বশর মাইজভা-ারী জানান, বিমানের পক্ষ থেকে বৈঠকে ভাড়া বাড়ানোর বিষয়ে ব্যাখ্যা দেওয়া হয়েছে। তবে কমিটি মনে করে, হজ পবিত্র ধর্মীয় বিষয়। এখানে লাভের প্রয়োজন নেই। প্রয়োজনে বিমান ভাড়ায় ভর্তুকি দেওয়া যায়। হজ সহায়তার দলে বিভিন্ন সময় রাজনৈতিক ব্যক্তিদের পাঠানো হয়। তারা যাওয়ার পর কোনো কাজ করে না। এ বিষয়ে সচেতন হতে হবে।

বৈঠক সূত্র জানায়, বৈঠকে বিমান ভাড়া বাড়ানোর যৌক্তিকতা সম্পর্কে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়, জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধি, বিমান পরিচালনার ব্যয় ও কর বৃদ্ধি, একমুখী পরিবহনসহ নানা কারণে বিমান ভাড়া বাড়াতে হয়েছে। এ ছাড়া ২০২২ সালে হজের সময় ডলারের বিনিময় হার ছিল ৮৫ টাকা ১০ পয়সা। এ বছর এই হার নির্ধারণ করা হয়েছে ১০৬ টাকা। ফলে বিমান ভাড়া বেড়েছে। এ ছাড়া বৈঠকে হজযাত্রীদের চিকিৎসার জন্য যে মেডিক্যাল টিম পাঠানো হয়, বিশেষজ্ঞ ডাক্তারদের অন্তর্ভুক্তির জন্য মন্ত্রণালয়কে ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে। কমিটির সভাপতি রুহুল আমীন মাদানীর সভাপতিত্বে কমিটির অন্য সদস্য জিন্নাতুল বাকিয়া, তাহমিনা বেগম ও রত্না আহমেদ বৈঠকে অংশ নেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর