• বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ১১:৫৮ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
ঈদের ২য় দিনে শতভাগ কোরবানির বর্জ্য অপসারণ ডিএনসিসির বিসিক চামড়া শিল্প নগরীর সিইটিপি প্রস্তুত : শিল্প সচিব আজ থেকে নতুন সময়সূচিতে চলবে সরকারি অফিস হাসপাতাল ভিজিট করে ডাক্তার হিসেবে লজ্জা লাগছে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী এবার আছাদুজ্জামানের দুর্নীতি তদন্তে নামছে দুদক? কবি অসীম সাহার মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক সেন্টমার্টিন দ্বীপ নিয়ে স্বার্থান্বেষী মহলের গুজবে বিভ্রান্ত হবেন না: আইএসপিআর ঈদ কেন্দ্র করে বাড়ল রিজার্ভ চামড়া কেনায় মিলছে ২৭০ কোটি টাকা ঋণ দুই সিটিতে কুরবানির বর্জ্য অপসারণে প্রস্তুত ১৯ হাজার কর্মী দুর্নীতি করে, কাউকে ঠকিয়ে সফল হওয়া যায় না: এলজিআরডি মন্ত্রী আসুন ত্যাগের মহিমায় দেশ ও মানুষের কল্যাণে কাজ করি: প্রধানমন্ত্রী বিজিবি পুলিশকে সতর্ক থাকার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে স্মার্ট হচ্ছে কৃষি জুনের ১২ দিনে প্রবাসীরা ১৪৬ কোটি ডলার রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন পদ্মা সেতুতে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ, বঙ্গবন্ধুতে নতুন রেকর্ড পাস হতে পারে ঋণের কিস্তি ছাড়ের প্রস্তাব সারা দেশে অভিযানের নির্দেশ জনশক্তি নিতে আজারবাইজানকে অনুরোধ সরে গেছে মিয়ানমারের জাহাজ

সিরাজগঞ্জের চরাঞ্চল থেকে ৩৫ মোটরসাইকেল জব্দ

সিরাজগঞ্জ টাইমস / ৭৩ বার পড়া হয়েছে।
সময় কাল : রবিবার, ১৪ আগস্ট, ২০২২

সিরাজগঞ্জের দুর্গম চরাঞ্চল মেছড়া ইউনিয়নের রূপসা বাজার থেকে ৩৫টি চোরাই মোটরসাইকেল জব্দ করেছে সদর থানা পুলিশ ও ডিবি পুলিশের সদস্যরা।

শনিবার (১৩ আগস্ট) বিকেলে উপজেলার রূপসা বাজার এলাকা থেকে পুলিশ বিশেষ অভিযান চালিয়ে এই মোটরসাইকেলগুলো জব্দ করা হয়। এ সময় ৮ মোটরসাইকেল নিয়ে মামলা দায়ের হয়েছে।

রোববার (১৪ আগস্ট) সকালে সিরাজগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি, অপারেশন) সুমন কুমার দাস এতথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, দীর্ঘদিন ধরে জেলা সদরসহ বিভিন্ন এলাকা থেকে কয়েকটি সংঘবদ্ধ চোর চক্র মোটরসাইকেল চুরি করে সিরাজগঞ্জের দুর্গম চরাঞ্চল মেছড়া ইউনিয়নের রূপসা বাজারে কেনাবেচা করতো। এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শনিবার বিকেলে সদর থানা পুলিশ, গোয়েন্দা পুলিশ ও ট্রাফিক বিভাগের সার্জেন্টের নেতৃত্বে এক যৌথ টিম রূপসা বাজারে বিশেষ অভিযান চালায়। এ সময় বিভিন্ন ব্রান্ডের ৭০টি মোটরসাইকেল জব্দ করা হয়। এর মধ্যে ৩৫টির বৈধ কাগজপত্র থাকায় ওই মোটরসাইকেলগুলো ছেড়ে দেওয়া হয়। বাকি মোটরসাইকেলের কাগজপত্র না থাকায় মোটর সাইকেলগুলো জব্দ করে থানা হেফাজতে আনা হয়েছে।

প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, জব্দ করা মোটরসাইকেলগুলোর মধ্যে কিছু চোরাই মোটরসাইকেল রয়েছে। এ বিষয়ে মোটরসাইকেলের মালিকানা যাচাইসহ পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের প্রক্রিয়া চলছে।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হুমায়ুন কবির জানান, সিরাজগঞ্জ জেলার বিভিন্ন স্থানেই কয়েকটি সংঘবদ্ধ চোরেরা মোটরসাইকেল চুরি করে নিরাপদ স্থান হিসেবে দুর্গম চরাঞ্চল বিক্রি করতো। চুরি যাওয়া মোটরসাইকেল উদ্ধারের বিষয়ে পুলিশসহ বিভিন্ন আইন শৃঙ্খলা বাহিনী তৎপর রয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর