মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৭:৪৯ অপরাহ্ন

সলঙ্গায় সহকারী শিক্ষিকার হাতে ধর্ম শিক্ষক লাঞ্ছিত

নিজস্ব প্রতিবেদক :
  • সময় কাল : বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০২২
  • ২৫ বার পড়া হয়েছে

সিরাজগঞ্জের সলঙ্গা ইসলামিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা রহিমা খাতুনের থাপ্পরে ধর্ম শিক্ষক আব্দুস সবুর লাঞ্ছিত ও আহত হয়েছেন । এ ঘটনা জানাজানি হলে ছাত্র, শিক্ষক ও অবিভাবকসহ স্থানীয় লোকজনের মধ্যে চরম চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে।

জানা গেছে, গত ৬ ডিসেম্বর বিদ্যালয়ে ধর্ম পরীক্ষা চলছিল ঐ দিন সহকারী শিক্ষিকা রহিমা খাতুন দেড়িতে বিদ্যালয়ে এসে খাতা ও প্রশ্নপত্র দিতে বিলম্ব করে। ধর্ম শিক্ষক আব্দুস সবুর রহিমা খাতুনের কাছে বিলম্বের কারন জানতে চাইলে রহিমা খাতুন ক্ষিপ্ত হয়ে আব্দুস সবুরকে থাপ্পর মারেন। এ সময় আব্দুস সবুর মাটিতে লুটিয়ে পরলে ছাত্ররা তাকে উদ্ধার করে প্রধান শিক্ষক শহিদুল ইসলামের রুমে নিয়ে যায়।

লাঞ্ছনার শিকার শিক্ষক আব্দুস সবুর জানান, আমি পরীক্ষা ম্যানেজের দায়িত্ব ছিলাম সে দেরিতে এসে আমাকে তড়িঘড়ি করে উত্তর পত্র দিতে এবং খাতায় সাক্ষর করতে বলেন, আমি দেরিতে আসার কারন জানতে চাইলেই তিনি ক্ষিপ্ত হয়ে আমাকে থাপ্পর মারে । আমি মাটিতে লুটিয়ে পরলে ছাত্ররা এসে আমাকে টেনে তুলে প্রধান শিক্ষকের রুমে নিয়ে যায়।

আমি স্কুল ম্যানেজিং কমিটি ও প্রধান শিক্ষক বরাবর লিখিত অভিযোগ দিয়েছি, তারা বিচারের আশ্বাস দিয়েছে।

অভিযুক্ত সহকারী শিক্ষিকা রহিমা খাতুনের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমি মিটিং-এ আছি, পরে কথা বলছি এর পর মুঠোফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

এ বিষয়ে সলঙ্গা ইসলামিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শহিদুল ইসলাম বলেন, এটি অনাকাঙ্খিত দুর্ঘটনা, আব্দুস সবুর লিখিত অভিযোগ করেছে। অচিরেই ম্যানেজিং কমিটির সাথে আলোচনা দ্রুত বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা করা হবে।

সলঙ্গা থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও
বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব রায়হান গফুর বলেন, আমি ঢাকায় আছি বিষয়টি শুনেছি এসে একটা সমাধান করব।

নিউজটি শেয়ার করুন....

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরও খবর
এই নিউজ পোর্টাল এর  কোন লেখা,ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি ও দণ্ডনীয় অপরাধ।
Design & Developed by Freelancer Zone
themesba-lates1749691102