• শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ১১:১২ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
সিলেট-সুনামগঞ্জে বন্যাদুর্গতদের পাশে আনসাররা কৃষিতে বকেয়া ভর্তুকি : ১০ হাজার কোটির বন্ড ইস্যু করছে সরকার ঈদকে ঘিরে রেমিট্যান্স বেড়েছে দেশে শেখ হাসিনার দিল্লি সফরের তিন প্রধান কারণ ঈদের ২য় দিনে শতভাগ কোরবানির বর্জ্য অপসারণ ডিএনসিসির বিসিক চামড়া শিল্প নগরীর সিইটিপি প্রস্তুত : শিল্প সচিব আজ থেকে নতুন সময়সূচিতে চলবে সরকারি অফিস হাসপাতাল ভিজিট করে ডাক্তার হিসেবে লজ্জা লাগছে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী এবার আছাদুজ্জামানের দুর্নীতি তদন্তে নামছে দুদক? কবি অসীম সাহার মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক সেন্টমার্টিন দ্বীপ নিয়ে স্বার্থান্বেষী মহলের গুজবে বিভ্রান্ত হবেন না: আইএসপিআর ঈদ কেন্দ্র করে বাড়ল রিজার্ভ চামড়া কেনায় মিলছে ২৭০ কোটি টাকা ঋণ দুই সিটিতে কুরবানির বর্জ্য অপসারণে প্রস্তুত ১৯ হাজার কর্মী দুর্নীতি করে, কাউকে ঠকিয়ে সফল হওয়া যায় না: এলজিআরডি মন্ত্রী আসুন ত্যাগের মহিমায় দেশ ও মানুষের কল্যাণে কাজ করি: প্রধানমন্ত্রী বিজিবি পুলিশকে সতর্ক থাকার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে স্মার্ট হচ্ছে কৃষি জুনের ১২ দিনে প্রবাসীরা ১৪৬ কোটি ডলার রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন পদ্মা সেতুতে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ, বঙ্গবন্ধুতে নতুন রেকর্ড

সন্ত্রাস ও মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্সে সরকার

সিরাজগঞ্জ টাইমস / ৬২ বার পড়া হয়েছে।
সময় কাল : বুধবার, ১৬ নভেম্বর, ২০২২

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা আসাদুজ্জামান খান কামাল এমপি বলেছেন, সন্ত্রাস ও মাদক নির্মূলে বর্তমান সরকার বদ্ধপরিকর, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে অতীতে যেভাবে সহিংসতা ও নাশকতা নির্মূল করা হয়েছে, তেমনিভাবে যে কোনো ধরনের সন্ত্রাস ও মাদকের বিরুদ্ধে সরকারের অবস্থান দৃঢ়।

সাতকানিয়া-লোহাগাড়ার মাদক, জঙ্গীবাদ ও সন্ত্রাস প্রতিরোধ কমিটি উদ্যোগে আয়োজনে গতকাল মঙ্গলবার (১৫ নভেম্বর) সন্ধ্যায় উপজেলার মাদার্শা বাবুনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে মাদক, জঙ্গীবাদ ও সন্ত্রাস বিরোধী সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। সমাবেশের আগে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী লোহাগাড়ার চুনতির নবনির্মিত ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স ষ্টেশন উদ্বোধন করেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমাদের দেশে কোথাও মাদক তৈরি হয় না। আমাদের দেশের যুব সমাজকে ধ্বংস করার জন্য বিদেশ থেকে মাদক আসছে। বিদেশ থেকে ট্রানজিট হিসেবে আমাদের দেশ দিয়ে বাইরে যায়। আমরা সেখানেও জিরো টলারেন্সের কথা বলছি। আমরা মাদকের জন্য আইন পরিবর্তন করেছি। সর্বোচ্চ শাস্তি মাদকের জন্য দিয়েছি। মাদকের জন্য আমাদের বর্ডার টাইট করেছি। বিজিবি ও কোস্টগার্ডকে শক্তিশালী করেছি। মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান চলছে। আমরা কোনক্রমেই মাদককে আমাদের দেশে ঢুকতে দেব না। নতুন প্রজন্মকে রক্ষা করতে হবে এটা আমাদের ওয়াদা। মাদক যে কি পরিমান ভয়াবহ রূপ নিচ্ছে বা যাচ্ছে, সেটা আপনারা শুনলে দিশাহারা হবেন। স্থানীয় জনপ্রতিনিধিসহ সবাই আমাদের প্রশাসনকে মাদক নির্মূলে সহযোগিতা করবেন। যাতে দেশ ও যুব সমাজকে মাদকের হাত থেকে রক্ষা করতে পারি।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মন্ত্রী আরও বলেন, ২০১৩ সালে বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে ঘোষণা দিয়ে বিএনপি ও তার জোট ৯২ দিন জ্বালাও-পোড়াও করেছেন। এ সময় তাদের দেওয়া আগুনে বাসের ভেতর অগ্নিদগ্ধ হয়ে বাবা-ছেলে মারা গেছেন। মা -বোনেরা পুড়ে দগ্ধ হয়েছেন। আর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা করলেন আগুনে পুড়ে যাওয়া ব্যক্তিদের চিকিৎসার জন্য বার্ন হাসপাতাল।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান আরও বলেন, অগ্নি সন্ত্রাসের পর জঙ্গিবাদের উত্থান হল। মন্দিরের পুরোহিতকে, বান্দারবনে বৌদ্ধ ভিক্ষুকে হত্যা করা হল। আমাদের হলিআর্টিজান বেকারিতে গুলি করে বিদেশিসহ আমাদের দেশের নাগরিককে হত্যা করা হল। এই সবগুলো প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে একে একে কন্ট্রোল করতে পেরেছি।

প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসা করে আসাদুজ্জামান খান বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা হৃদয় দিয়ে ইসলাম ধর্মকে ধারণ করেন। তিনি ঘোষণা দিয়েছেন কোরান-সুন্নাহর বাইরে কোনো কিছু করবেন না। আজ পর্যন্ত কোরান-সুন্নাহর বাইরে কিছু করেননি। তারা ষড়যন্ত্রে লিপ্ত আছে। তারা কোনদিন জনগণের কথা বলে না। তারা জনগণের ভোটের উপর বিশ্বাস করে না। কিন্তু আওয়ামী লীগ জনগণকে নিয়ে চলে, জনগণকে নিয়ে বলে বলেই সব ষড়যন্ত্র উপেক্ষা করে আজকে জননেত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে উজ্জ্বল নক্ষত্রের মত বানিয়ে দিয়েছেন। সারা বিশ্ব আজকে অবাক হয়ে তাকিয়ে থাকে বাংলাদেশের দিকে। এটি সম্ভব হয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী, দক্ষ ও সৎ নেতৃত্বের কারণে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ২০৩০ সালের মধ্যে আমরা উন্নত জাতি, ২০৪১ সালে উন্নত দেশে পরিণত হব। তার জন্য যা যা করার তা প্রধানমন্ত্রী করে যাচ্ছেন। আর বিএনপি দেশের কমিউনিটি ক্লিনিকগুলো বন্ধ করে দিয়েছিলেন। সব স্বাস্থ্য কেন্দ্রগুলো মুখ থুবড়ে পড়েছিল। সবকিছু স্থবির হয়ে গিয়েছিল। পরে শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসার পর স্বাস্থ্য কেন্দ্রগুলো আবার চালু হল। স্বাস্থ্য কেন্দ্র থেকে বিনামূল্যে ৩৫ ধরনের ওষুধ বিতরণ করা হচ্ছে।

চট্টগ্রাম-১৫ আসনের সংসদ সদস্য প্রফেসর ড. আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামুদ্দিন নদভী এমপির সভাপতিত্বে ও সাতকানিয়া পৌরসভা মেয়র মোহাম্মদ জোবায়েরের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান, মহিলা আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য রিজিয়া রেজা চৌধুরী, দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট জহির উদ্দিন, চট্টগ্রাম পুলিশ সুপার এস এম শফিউল্লাহ, সাতকানিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এম এ মোতালেব, দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক গোলাম ফারুক ডলার, সাতকানিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কুতুব উদ্দীন চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ শাহজাহান ও ফয়েজ আহমদ লিটন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর