• রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ০৭:০১ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
বিজিবি পুলিশকে সতর্ক থাকার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে স্মার্ট হচ্ছে কৃষি জুনের ১২ দিনে প্রবাসীরা ১৪৬ কোটি ডলার রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন পদ্মা সেতুতে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ, বঙ্গবন্ধুতে নতুন রেকর্ড পাস হতে পারে ঋণের কিস্তি ছাড়ের প্রস্তাব সারা দেশে অভিযানের নির্দেশ জনশক্তি নিতে আজারবাইজানকে অনুরোধ সরে গেছে মিয়ানমারের জাহাজ নৌপথে ঈদযাত্রায় নিরাপত্তা নিশ্চিতে কোস্ট গার্ডের টহল প্রধানমন্ত্রীর দিল্লি সফরে প্রাধান্য পাবে তিস্তা ইস্যু সবুজ বাংলাদেশ গড়ে তোলার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর ডিসেম্বরেই ট্রেন চলবে বঙ্গবন্ধু রেলসেতুতে ঢেলে সাজানো হচ্ছে রাজস্ব ব্যবস্থাপনা বাংলাদেশের অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখত বেশি করে গাছ লাগাতে হবে: পরিবেশমন্ত্রী ভূমি জটিলতা দূর করতে সরকার কাজ করে যাচ্ছে : ডেপুটি স্পিকার গ্লোবাল কোয়ালিশন ফর সোশ্যাল জাস্টিসে বাংলাদেশের যোগদান ফজিলাতুন নেছা মুজিব হাসপাতালে স্বাস্থ্য পরীক্ষা করালেন প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফরে সম্পর্ক নতুন গতি পাবে সিরাজগঞ্জে অবৈধভাবে ভূমি দখল করে বাড়ী নির্মাণের অভিযোগ বুয়েটে স্থাপন হচ্ছে অত্যাধুনিক ন্যানো ল্যাব

রমজানে কোটি মানুষ বিনামূল্যে চাল পাবে

সিরাজগঞ্জ টাইমস / ৪৭ বার পড়া হয়েছে।
সময় কাল : শুক্রবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩

আসন্ন রমজান মাসজুড়ে দেশের এক কোটি মানুষ বিনামূল্যে ১০ কেজি করে চাল পাবে। বিশেষ ভিজিএফ কর্মসূচির আওতায় তাদেরকে এই চাল দেবে সরকার। অন্যদিকে আগামী মার্চ থেকে মে মাস পর্যন্ত খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির আওতায় ৫০ লাখ পরিবারকে ১৫ টাকা কেজিতে মাসে ৩০ কেজি করে চাল দেয়া হবে। ওএমএস কার্যক্রমও অব্যাহত থাকবে। ওএমএসে আটার বরাদ্দও বাড়ানো হবে।

খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে নিজ দপ্তরে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, ‘বেসরকারিভাবে চাল আমদানি কম হলেও দেশে প্রধান এই খাদ্যশস্যের কোনো সংকট নেই। সরকারি গুদামেও রেকর্ড খাদ্যশস্য মজুত রয়েছে।

খাদ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আগামী রমজান মাসে মানুষকে অন্তত চালের জন্য বিব্রতকর অবস্থায় পড়তে হবে না। কারণ স্বাধীনতার পর থেকে এবার সর্ববৃহৎ বিতরণ কার্যক্রম চলছে। আড়াই হাজার ডিলারের মাধ্যমে চাল ও আটা বিতরণ করা হচ্ছে।

‘অন্য বছর এ সময়ে ওএমএস কর্মসূচি বন্ধ রাখা হলেও এবার ওএমএসে নিম্ন আয়ের মানুষ ৩০ টাকা কেজিতে চাল ও ২৪ টাকা কেজিতে আটা কিনতে পারবেন।’

‘সরকারি গুদামে বর্তমানে ২০ লাখ ৩৩ হাজার ৯২৮ টন চাল ও গম মজুত রয়েছে। এর মধ্যে ১৬ লাখ ৩৮ হাজার ৬৬৬ টন চাল ও ৩ লাখ ৯৫ হাজার ২৬২ টন গম।

মন্ত্রী বলেন, ‘বেসরকারিভাবে চাল আমদানির পথ খোলা থাকলেও তা কম আসছে। দেশে প্রচুর চালের মজুত আছে। সরকারি মজুতও প্রচুর। স্বাধীনতার পর থেকে এখন আমাদের সবচেয়ে বেশি মজুত রয়েছে।’

গত বছরের ১ জুলাই থেকে চলতি বছরের ১৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত সরকারিভাবে ৫ লাখ ১৮ হাজার ৮৯০ টন চাল এবং ৫ লাখ ৩৫ হাজার ৬১০ টন গম আমদানি করা হয়েছে। এ সময়ে বেসরকারিভাবে ৪ লাখ ১৩ হাজার ৮৫ টন চাল এবং ১২ লাখ ২২ হাজার ১৩০ টন গম আমদানি হয়েছে। চাল আমদানিতে শুল্ক উঠিয়ে দেয়া হলেও আশানুরূপ চাল আমদানি হয়নি।

দেশে চালের দাম বেড়ে গেলে আমদানি উৎসাহিত করতে ২২ জুন চাল আমদানিতে ২৫ শতাংশ আমদানি শুল্ক প্রত্যাহার ও নিয়ন্ত্রণমূলক শুল্ক ২৫ শতাংশ থেকে কমিয়ে ১০ শতাংশ করে দেয় সরকার। গত আগস্টে নিয়ন্ত্রণমূলক শুল্ক কমিয়ে ৫ শতাংশ করে এর মেয়াদ ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত করা হয়। এরপর বিনা শুল্কে সিদ্ধ ও আতপ চাল আমদানির সুবিধা আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত বাড়িয়ে দেয় জাতীয় রাজস্ব বোর্ড-এনবিআর।

অভ্যন্তরীণ বাজার থেকে পাঁচ লাখ টন আমন চাল কেনার লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে জানিয়ে খাদ্যমন্ত্রী বলেন, ‘সেখানে এখন পর্যন্ত ৩ লাখ ৭৪ হাজার ৩০ টন চাল সংগ্রহ করা হয়েছে।

‘বৈশ্বিক সংকটের প্রভাব বাংলাদেশে পড়বে না। আমনে আমাদের বাম্পার ফলন হয়েছে। দুর্বিপাক না হলে বোরোতেও বাম্পার ফলন হবে। তাহলে আমদানির আর প্রয়োজন হবে বলে আমি মনে করি না।’

চালের বস্তায় ধানের জাত লেখা বাধ্যতামূলক করতে একটি আইন করা হচ্ছে জানিয়ে সাধন চন্দ্র বলেন, ‘আইনের খসড়াটি ভেটিংয়ের জন্য আইন মন্ত্রণালয়ে রয়েছে।’


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর