• শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ১০:২২ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
তথ্যপ্রযুক্তি খাতে করারোপ হচ্ছে না ঢাকায় ব্যাটারিচালিত রিকশা চলতে বাধা নেই টেলিটক, বিটিসিএলকে লাভজনক করতে ব্যবস্থা নেয়ার সুপারিশ ভারত থেকে ২শ কোচ কেনার চুক্তি বেসরকারি কোম্পানি চালাতে পারবে ট্রেন দেশে মাথাপিছু আয় বেড়ে ২৭৮৪ ডলার ৫ জুন বাজেট অধিবেশন শুরু চালু হচ্ছে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক শান্তি পুরস্কার বুদ্ধ পূর্ণিমা অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছা বার্তা পাঠ করলেন বিপ্লব বড়ুয়া ইরানের প্রেসিডেন্টের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক নিত্যপণ্যের বাজার কঠোর মনিটরিংয়ের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর উত্তরা থেকে টঙ্গী মেট্রোরেলে হবে নতুন ৫ স্টেশন এমপিও শিক্ষকদের জন্য আসছে আচরণবিধি সরকার ই-বর্জ্য ব্যবস্থাপনা উন্নত করতে কাজ করছে: পরিবেশমন্ত্রী বাংলাদেশে বাণিজ্য ও বিনিয়োগ সম্প্রসারণে আগ্রহী কানাডা মেট্রোরেলে ভ্যাট এনবিআরের ভুল সিদ্ধান্ত ২৫ মে বঙ্গবাজার কমপ্লেক্সের নির্মাণ কাজের উদ্ভোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী সাগরে মাছ ধরা ৬৫ দিন বন্ধ বান্দরবানে যৌথ বাহিনীর অভিযানে তিনজন নিহত বঙ্গবন্ধু ‘জুলিও কুরি’ পদক নীতিমালা মন্ত্রিসভায় উঠছে

মেট্রোরেল বাণিজ্যিক কার্যক্রমের জন্য প্রস্তুত

সিরাজগঞ্জ টাইমস / ৫৬ বার পড়া হয়েছে।
সময় কাল : শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০২২

বহুল প্রতীক্ষিত প্রথম এলিভেটেড মেট্রো রেল এই মাসেই উত্তরা ও আগারগাঁও সেকশনের মধ্যে বাণিজ্যিক কার্যক্রমের জন্য প্রস্তুত।ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম এ এন সিদ্দিক জানান, ‘আমরা বহুল প্রতীক্ষিত মেট্রোরেলের বাণিজ্যিক কার্যক্রমের জন্য প্রস্তুত এবং আশা করছি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ মাসেই (ডিসেম্বর) আনুষ্ঠানিকভাবে মেট্রো রেলের উদ্বোধন করবেন।’

তিনি বলেন, মেট্রোরেল যাত্রীদের দুর্ভোগ লাঘব করবে কারণ এটি আরামদায়ক উপায়ে কম সময়ে বেশি যাত্রী পরিবহন করতে সক্ষম হবে।
এমআরটি লাইন-৬ এর প্রকল্প পরিচালক মো: আফতাবউদ্দিন তালুকদার এ বিষয়ে জানান, মেট্রো রেল প্রতি ঘণ্টায় ৬০ হাজার যাত্রী ও প্রতিদিন অর্ধলাখ যাত্রী বহন করতে সক্ষম হবে এবং প্রতি চার মিনিটে প্রতিটি স্টেশনে একটি ট্রেন আসবে।

মেট্রোরেল কর্মকর্তার মতে, উত্তরা থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত প্রায় ৯৫ শতাংশ নির্মাণকাজ সম্পন্ন হয়েছে এবং চলতি মাসের মধ্যেই মেট্রোরেলের এই অংশটি বাণিজ্যিকভাবে চালু হয়ে যাবে। সব সিভিল কাজ, যান্ত্রিক, বৈদ্যুতিক এবং নদীর গভীরতানির্ণয় (এমইপি), স্থাপত্য, অগ্নিনির্বাপক ব্যবস্থা, ডিজেল জেনারেটর, স্যুয়ারেজ ট্রিটমেন্ট প্ল্যান্ট (এসটিপি) এবং আলো স্থাপন কার্যক্রম সম্পন্ন হয়েছে, তিনি বলেছিলেন।

ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট কোম্পানির মাসিক অগ্রগতি প্রতিবেদনে দেখা গেছে যে এমআরটি লাইন ছয় প্রকল্পটি এই বছরের নভেম্বরের শেষ পর্যন্ত সামগ্রিকভাবে ৮৪.২২ শতাংশ অগ্রগতি করেছে, যেখানে আগারগাঁও থেকে মতিঝিল অংশে ৮৪.৮৭ শতাংশ অগ্রগতি হয়েছে। মতিঝিল থেকে কমলাপুর অংশের ইউটিলিটি ভেরিফিকেশনের কাজ শিগগিরই শুরু হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

এমআরটি লাইন-৬ উল্লেখযোগ্যভাবে ছোট যানবাহনের ব্যবহার হ্রাস করবে এবং জীবাশ্ম জ্বালানির ব্যবহার ব্যাপকভাবে হ্রাস পাবে। নগরবাসীর কর্মঘণ্টা বাঁচবে। সংরক্ষিত কর্মঘণ্টা দেশের আর্থসামাজিক উন্নয়নে ব্যবহার করা যেতে পারে। যানজটও কমবে।

যেহেতু মেট্রো রেল সম্পূর্ণ বৈদ্যুতিক, তাই কোনো জীবাশ্ম জ্বালানি ব্যবহার করা হবে না। ফলে বায়ু দূষণের কোনো সুযোগ নেই। মেট্রো রেলের রেলওয়ে ট্র্যাকের অধীনে একটি গণ স্প্রিং সিস্টেম (এমএসএস) থাকবে। কন্টিনিউয়াস ওয়েল্ডেড রেল (সিডব্লিউআর) ব্যবহার করা হবে। মেট্রোরেলের ভায়াডাক্টের দুই পাশে সাউন্ড ব্যারিয়ার দেয়াল থাকবে।

ফলস্বরূপ, মেট্রো রেলে শব্দ এবং কম্পনের মাত্রা স্বাভাবিকের চেয়ে অনেক কম হবে। এটি পরিবেশগত উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। এ ছাড়াও মেট্রো ট্রেনের কোচগুলোর ভেতরে শিশু, গর্ভবতী মহিলা এবং বয়স্ক যাত্রীদের জন্য বিশেষ আসন সংরক্ষিত থাকবে।

অপেক্ষাকৃত কম উচ্চতায় টিকিট বুথ থাকবে যাতে হুইলচেয়ার ব্যবহারকারী এবং খাটো মানুষ টিকিট অফিস মেশিনের (টিওএম) মাধ্যমে সহজেই টিকিট সংগ্রহ করতে পারে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর