• শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ০৬:০৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
কোটা বজায় রাখার নির্দেশ, চাইলে করা যাবে সংস্কার রাজউক প্রকল্পের দীর্ঘসূত্রতায় ক্ষোভ গণপূর্তমন্ত্রীর গমের উৎপাদন বাড়াতে মেক্সিকোর সহযোগিতা চান কৃষিমন্ত্রী সবুজ কারখানার সনদপ্রাপ্তিতে বাংলাদেশের নতুন রেকর্ড পিএসসিতে শুদ্ধি অভিযান জানমাল অনিশ্চয়তায় পড়লে বসে থাকবে না পুলিশ : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কেন বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়নে আগ্রহী ফ্রান্স, জানালেন রাষ্ট্রদূত আন্দোলনকারীদের জন্য আদালতের দরজা খোলা: প্রধান বিচারপতি মংলা বন্দরে এক বছরে রাজস্ব বেড়েছে সাড়ে ৫ শতাংশ সাত দেশ থেকে পরিশোধিত জ্বালানি তেল কিনবে সরকার বাণিজ্যে স্থানীয় মুদ্রার ব্যবহার বাড়াতে সম্মত বাংলাদেশ-চীন ২৫ বছরের পুরোনো নথি জমা না দিলে জরিমানা নজরদারিতে পিএসসির ১০ কর্তা দেশের শিল্প খাতে রুফটপ সোলার ব্যবহার বাড়ছে ২০২৬ সালের মধ্যে শেষ হবে ডিজিটাল ভূমি জরিপ: ভূমিমন্ত্রী কর্মীদের দক্ষতা বাড়াতে কোটি ডলারের চুক্তি জাতিসংঘে সর্বসম্মতভাবে প্রস্তাব গৃহীত কোটা বাতিলের প্রজ্ঞাপন আপাতত বহাল এবার ওয়েবসাইটে মুদ্রানীতি প্রকাশ করবে কেন্দ্রীয় ব্যাংক বৃটেনে অন্য উচ্চতায় বাংলাদেশ

অনলাইন ডেস্ক

ভোটারের দ্বারে যেতে নির্দেশ আ.লীগের

সিরাজগঞ্জ টাইমস / ১৮০ বার পড়া হয়েছে।
সময় কাল : বুধবার, ২৮ জুন, ২০২৩

আগামীকাল বৃহস্পতিবার উদযাপিত হবে মুসলমানদের অন্যতম বড় ধর্মীয় উৎসব ঈদুল আজহা। এরই মধ্যে শুরু হয়েছে ছুটি। আত্মীয়-স্বজন ও এলাকাবাসীর সঙ্গে ঈদ আনন্দ ভাগাভাগি করতে রাজধানী ছেড়েছেন অধিকাংশ মানুষ। ঈদ রাজনীতিবিদ ও জনপ্রতিনিধিদের জন্য গণসংযোগেরও একটি বড় উপলক্ষ। এবার এতে যোগ হয়েছে নির্বাচনী আমেজ। ফলে এবারের ঈদ পাচ্ছে ভিন্নমাত্রা। আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে শেষ ঈদ হওয়ায় এটিকে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছে ক্ষমতাসীনরা। ঈদ কাজে লাগাতে তৃণমূলের দ্বন্দ্ব মিটিয়ে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে যেতে দলের সব নেতাকর্মীকে নির্দেশনা দিয়েছেন দলটির নীতিনির্ধারকরা। ফলে ঈদের সময় নির্বাচনী প্রচারে সক্রিয় থাকতে এলাকামুখী অধিকাংশ কেন্দ্রীয় নেতা, সংসদ সদস্য ও মনোনয়নপ্রত্যাশীরা।

নির্বাচনী প্রস্তুতি ছাড়াও মাঠের বিরোধী দল বিএনপি আন্দোলন ও অপপ্রচার মোকাবিলায় দলের তৃণমূলকে ঐক্যবদ্ধ করতে এবারের ঈদকে বেছে নিয়েছে আওয়ামী লীগ। দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে দূরত্ব মিটিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা অনুযায়ী অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে যথাসম্ভব সাহায্য-সহযোগিতা করবেন নেতাকর্মীরা।

এ বিষয়ে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ফারুক খান কালবেলাক বলেন, আমরা সবসময় জনগণের পাশে ছিলাম ও আছি। সে হোক ঈদ, পূজা কিংবা করোনা। সামনে যেহেতু নির্বাচন, সেজন্য এবারের তৎপরতা একটু বেশিই থাকবে। জনগণের পাশে দাঁড়াতে দলের পক্ষ থেকেও নেতাকর্মীদের সেসব নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

ঈদে সর্বস্তরের নেতাকর্মীদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময়ের জন্য নিজ সরকারি বাসভবন গণভবনে অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তবে এবার সে রকম কোনো আয়োজন থাকছে না। ঈদের পর নিজ এলাকা গোপালগঞ্জ সফর করবেন তিনি। সেখানে দুদিন অবস্থান করবেন। জুলাই মাসে প্রথম দুদিনে তিনি গোপালগঞ্জ ও কোটালীপাড়ায় কিছু কর্মসূচিতে অংশ নেবেন। এর মধ্যে নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় অন্যতম। আগামী নির্বাচনকে ঘিরে তিনি এ কর্মসূচি নিয়েছেন বলে দলীয় সূত্র জানিয়েছে।

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম বলেন, নিজ এলাকায় সব শ্রেণি-পেশার মানুষের সঙ্গে ঈদ করব। ভোটারদের কাছে যাব। দলের নির্দেশনা অনুযায়ী, নির্বাচনী কাজের অংশ হিসেবে নেতাকর্মী ও সাধারণ মানুষকে বিএনপি-জামায়াতের দুর্নীতি ও অপপ্রচারের বিরুদ্ধে সজাগ রাখতে কাজ করব।

করোনার কঠিন সময়েও মানুষের পাশে ছিল ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। রমজানেও ইফতার পার্টি না করে নানাভাবে সাধারণ মানুষকে সাহায্য-সহযোগিতা করেছে দলটি। তবে এবার বৈশ্বিক অর্থনৈতিক সংকটের বিষয়টিও রয়েছে। সব বিষয় মাথায় রেখেই দলের নেতাকর্মীদের দিকনির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

জানা গেছে, আওয়ামী লীগের অনেক নেতা এরই মধ্যে সাধারণ মানুষের সঙ্গে ঈদ করতে ঢাকা ছেড়েছেন। সংসদ অধিবেশন চলায় মন্ত্রী-সংসদ সদস্যদের মধ্যে যারা ঢাকায় ছিলেন, তারাও অধিবেশন মুলতবির পর নিজ নির্বাচনী এলাকার উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছেন। অনেকেই নিজ এলাকায় ঈদ উদযাপন করবেন। অনেকেই আবার নিজ নির্বাচনী এলাকায় কয়েক দফা ঘুরেও এসেছেন। দলীয় নেতাকর্মী ও সাধারণ মানুষের উপহারসামগ্রী দিয়েছেন। পাশাপাশি গরিব-দুঃখীদের মধ্যে ঈদসামগ্রী বিতরণসহ কোরবানির ব্যবস্থা করে এসেছেন। ঈদের পর আবার এলাকায় যাওয়ার পরিকল্পনাও রয়েছে তাদের।

আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন বলেন, জনগণের সঙ্গে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করা, ঈদ পরবর্তী সময় থেকে নির্বাচন পর্যন্ত নিয়মিত জনগণের দুয়ারে দুয়ারে গিয়ে উন্নয়ন ও মানবকল্যাণের ধারা অব্যাহত রাখতে এবং দেশবিরোধী ষড়যন্ত্র মোকাবিলা করতে জনগণকে সংগঠিত করা ও নৌকার পক্ষে ভোট চাওয়ার জন্য দলের নেতাকর্মীদের প্রতি অনুরোধ জানানো হয়েছে।

আওয়ামী লীগ নেতারা বলেন, ঈদ ছাড়াও অন্যান্য উৎসবেও জনসাধারণের সঙ্গে আওয়ামী লীগ সম্পৃক্ত থাকে। এই ঈদেও অসহায় মানুষের পাশে নানাভাবে যুক্ত থাকতে দলের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নির্দেশনা দিয়েছেন। একই সঙ্গে সরকারের উন্নয়ন এবং বিএনপি-জামায়াত সময়ের নেতিবাচক কর্মকাণ্ড প্রচারেরও নির্দেশনা রয়েছে।

আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন বলেন, নির্বাচন সামনে, তাই জনসম্পৃক্ততা একটু বেশিই হবে। ঈদ উদযাপনের পাশাপাশি দেশের অগ্রযাত্রায় শেখ হাসিনার বিকল্প নেই, তা জনগণের কাছে তুলে ধরব। বিএনপি-জামায়াত এলে দেশ অন্ধকারের দিকে যাবে, সেটিও উপস্থাপন করব।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর