• শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:১৩ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
এবার চট্টগ্রাম থেকে ঢাকায় জ্বালানি তেল যাবে পাইপ লাইনে কাতারের আমির আসছেন সোমবার রাজস্ব ফাঁকি ঠেকাতে ক্যাশলেস পদ্ধতিতে যাচ্ছে এনবিআর বাংলাদেশে দূতাবাস খুলছে গ্রিস বঙ্গবন্ধু টানেলে পুলিশ-নৌবাহিনী-ফায়ার সার্ভিসের জরুরি যানবাহনের টোল মওকুফ সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনীতে আসছেন আরও ৪ লাখ মানুষ ৫০ বছরে দেশের সাফল্য চোখে পড়ার মতো চালের বস্তায় জাত, দাম উৎপাদনের তারিখ লিখতেই হবে মন্ত্রী-এমপির প্রার্থীদের সরে দাঁড়ানোর নির্দেশ প্রাণী ও মৎস্যসম্পদ উন্নয়নে বেসরকারি খাত এগিয়ে আসুক ফের আশা জাগাচ্ছে লালদিয়া চর কনটেইনার টার্মিনাল ‘মাই লকারে’ স্মার্টযাত্রা আগামী সপ্তাহে থাইল্যান্ড সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী মধ্যপ্রাচ্য পরিস্থিতির ওপর নজর রাখার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর ব্যাংকের আমানত বেড়েছে ১০.৪৩ শতাংশ বঙ্গবাজারে দশতলা মার্কেটের নির্মাণ কাজ শুরু শিগগিরই বেঁচে গেলেন শতাধিক যাত্রী ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস আজ মন্ত্রী-এমপিদের প্রভাব না খাটানোর নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর মুজিবনগর দিবসে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বাণী

বাংলাদেশ বর্তমানে কোনো সংকটে নেই: আইএমএফ

সিরাজগঞ্জ টাইমস / ৪০ বার পড়া হয়েছে।
সময় কাল : বুধবার, ১৮ জানুয়ারী, ২০২৩

আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) উপব্যবস্থাপনা পরিচালক (ডিএমডি) অন্তেইনেত এম সায়েহ বলেছেন, বাংলাদেশ বর্তমানে কোনো সংকটে নেই। তবে আসন্ন অর্থনৈতিক সংকট মোকাবিলায় বাংলাদেশ আইএমএফের সহায়তা চেয়েছে। আইএমএফও তার সদস্য রাষ্ট্র হিসেবে বাংলাদেশের পাশে দাঁড়িয়েছে। মঙ্গলবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আলাপকালে বাংলাদেশ সফররত এম সায়েহ এসব কথা বলেন।

ঢাবি অর্থনীতি বিভাগের আমন্ত্রণে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আলোচনা অনুষ্ঠানে সায়েহ যোগ দেন। অর্থনীতি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মাসুদা ইয়াসমিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনায় আইএমএফের ডিএমডি এম সায়েহ প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন সমাজবিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক জিয়া রহমান।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের বিভিন্ন বিষয় সম্পর্কে লিখিত বক্তব্য দেন সায়েহ। এরপর আইএমএফের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা তাকে প্রশ্ন করেন। জবাবে সায়েহ বলেন, ব্যয়ের ক্ষেত্রে সবচেয়ে প্রয়োজনীয় বিষয়কে বেশি প্রাধান্য দিতে হয়। যে জায়গায় টাকা ব্যয় নিরাপদ তা খুঁজে বের করতে হয়।

ভর্তুকির বিষয়ে তিনি বলেন, কিছু ভর্তুকি গরিবদের সাহায্য করে না। বরং ধনীরা উপকৃত হয়। ভর্তুকি হতে হবে- টার্গেটেড এবং তা যেন গরিবদের সাহায্য করে। এ ক্ষেত্রে বাংলাদেশের ভর্তুকির ভালো চর্চা আছে। কারণ এটা কেন্দ্রীয়ভাবে নিয়ন্ত্রণ করা হয় এবং প্রয়োজন ও পরিস্থিতি বুঝে তা ব্যয় করা হয়। একইসঙ্গে এমন ভর্তুকি কমাতে হবে- যা খারাপ উদ্দেশ্যে দেওয়া হয় এবং গরিবদের সাহায্য করে না। মুদ্রাস্ফীতির চাপ কমানোর জন্যই শুধু ভর্তুকি কমানোর কথা বলা হয়নি। আরেক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বাংলাদেশের সক্ষমতা উন্নয়নে আমরা টেকনিক্যাল সাপোর্ট দেব।

আইএমএফের শর্তের বিষয়ে জানতে চাইলে এম সায়েহ বলেন, শর্তগুলো সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে জানিয়ে দেওয়া হয় যাতে তারা জানতে পারে প্রকৃতপক্ষে কী করতে হবে। এগুলো পূর্বনির্ধারিত এবং কোনোভাবেই একপাক্ষিক নয়। পরিস্থিতি বিবেচনা করে শর্ত ঠিক করা হয়। আর এগুলো ইতোমধ্যে অনেক দেশে প্রয়োগ করে তার খারাপ ও ভালো উভয় দিকই যাচাই করা হয়েছে। এসব কারণেই শর্তও প্রয়োজন।

এর আগে দুপুরে ঢাবি ক্যাম্পাস পরিদর্শন করেন সায়েহ। এ সময় তিনি ঢাবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. আখতারুজ্জামানের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর