• শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ০৬:৪৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
কোটা বজায় রাখার নির্দেশ, চাইলে করা যাবে সংস্কার রাজউক প্রকল্পের দীর্ঘসূত্রতায় ক্ষোভ গণপূর্তমন্ত্রীর গমের উৎপাদন বাড়াতে মেক্সিকোর সহযোগিতা চান কৃষিমন্ত্রী সবুজ কারখানার সনদপ্রাপ্তিতে বাংলাদেশের নতুন রেকর্ড পিএসসিতে শুদ্ধি অভিযান জানমাল অনিশ্চয়তায় পড়লে বসে থাকবে না পুলিশ : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কেন বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়নে আগ্রহী ফ্রান্স, জানালেন রাষ্ট্রদূত আন্দোলনকারীদের জন্য আদালতের দরজা খোলা: প্রধান বিচারপতি মংলা বন্দরে এক বছরে রাজস্ব বেড়েছে সাড়ে ৫ শতাংশ সাত দেশ থেকে পরিশোধিত জ্বালানি তেল কিনবে সরকার বাণিজ্যে স্থানীয় মুদ্রার ব্যবহার বাড়াতে সম্মত বাংলাদেশ-চীন ২৫ বছরের পুরোনো নথি জমা না দিলে জরিমানা নজরদারিতে পিএসসির ১০ কর্তা দেশের শিল্প খাতে রুফটপ সোলার ব্যবহার বাড়ছে ২০২৬ সালের মধ্যে শেষ হবে ডিজিটাল ভূমি জরিপ: ভূমিমন্ত্রী কর্মীদের দক্ষতা বাড়াতে কোটি ডলারের চুক্তি জাতিসংঘে সর্বসম্মতভাবে প্রস্তাব গৃহীত কোটা বাতিলের প্রজ্ঞাপন আপাতত বহাল এবার ওয়েবসাইটে মুদ্রানীতি প্রকাশ করবে কেন্দ্রীয় ব্যাংক বৃটেনে অন্য উচ্চতায় বাংলাদেশ

প্রাথমিক শিক্ষক বদলি নির্দেশিকা সংশোধন

সিরাজগঞ্জ টাইমস / ১৩৭ বার পড়া হয়েছে।
সময় কাল : মঙ্গলবার, ১৮ অক্টোবর, ২০২২

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক বদলি নির্দেশিকা সংশোধন করেছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। গত ১১ অক্টোবর সই করা নির্দেশিকাটি মঙ্গলবার (১৮ অক্টোবর) প্রকাশিত হয়। সংশোধিত নির্দেশিকায় অনলাইনে বদলিতে কয়েকটি শর্ত শিথিল করা হয়েছে।

এর আগে গত ১০ অক্টোবর বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি থেকে নির্দেশিকার কয়েকটি ধারা সংশোধন করার প্রস্তাব দেওয়া হয়। এই প্রস্তাবের পর মন্ত্রণালয় নির্দেশিকাটি সংশোধন করে।

সংশোধিত নির্দেশিকার ১.৪ ধারার বলা হয়, যে সকল বিদ্যালয়ে চার জন বা তার কম সংখ্যক শিক্ষক কর্মরত আছেন কিংবা শিক্ষক-শিক্ষার্থী অনুপাত ১:৪০ এর বেশি রয়েছে সে সকল বিদ্যালয় থেকে সাধারণভাবে শিক্ষক বদলি করা যাবে না। তবে প্রতিস্থাপন/পদায়ন সাপেক্ষে বদলি করা যাবে। শিক্ষক-শিক্ষার্থী অনুপাত নির্ধারণের ক্ষেত্রে ডাবল শিফটে শ্রেণি কার্যক্রম পরিচালনাকারী বিদ্যালয়গুলোর ক্ষেত্রে যেকোনও এক শিফটে শিক্ষার্থী যথা ১ম, ২য় অথবা ৩য় থেকে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত শিক্ষার্থীর সংখ্যার মধ্যে যে সংখ্যা বেশি হবে তাকে ১:৪০ অনুপাত হিসেবে বিবেচিত হবে।

নির্দেশিকার ৩.৬ ধারার সংশোধিত অংশে বলা হয়, আন্তঃউপজেলা/থানা, আন্তঃজেলা কিংবা আন্তঃবিভাগ বদলির ক্ষেত্রে বদলিকৃত শিক্ষকদের জ্যেষ্ঠতা প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জারি করা সর্বশেষ পরিপত্র/নীতিমালা দ্বারা নির্ধারিত হবে।

নির্দেশিকার ৩.৭ ধারার সংশোধন অংশে বলা হয়, প্রতিবন্ধিতার ক্ষেত্রে শিক্ষকদের সন্তান কিংবা স্বামী/স্ত্রী প্রতিবন্ধী হলেও তিনি অগ্রাধিকার পাবেন।

আগের নির্দেশিকায় সংশোধন চেয়ে বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি বলেছিল, নির্দেশিকার ৩.৩ ধারা অনুযায়ী শিক্ষক ও ছাত্র ১ অনুপাত ৪০-এর বেশি হলে বদলি করা যাবে না, এটি রহিত করতে হবে। আর এই ধরায় বলা হয়েছে চার জন বা তার কমসংখ্যক শিক্ষক কর্মরত আছেন তাদের সাধারণভাবে বদলি করা যাবে না। এটি সংশোধন করে নতুন শিক্ষক প্রতিস্থাপন সাপেক্ষে বদলির সুযোগ দিতে হবে। তাহলে শিক্ষকরা বঞ্চিত হবেন না। পারস্পরিক বদলির সুযোগ সৃষ্টি করতে শিক্ষকরা উপকৃত হবেন। একইসঙ্গে বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীর পাঠদানে ব্যাঘাত ঘটবে না। ৩.৬ ধারায় একাধিক প্রার্থী থাকলে দূরত্ব, লিঙ্গ, বিবাহসহ অন্যান্য অপশনের পরিবর্তে চাকরির জ্যেষ্ঠতার ভিত্তিতে বদলির ব্যবস্থা করতে হবে।

সুত্র : বাংলা ট্রিবিউন


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর