রবিবার, ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০১:১৮ পূর্বাহ্ন

পদ্মা সেতুকে ঘিরে বিসিকের ব্যাপক শিল্পায়নের পরিকল্পনা

সিরাজগঞ্জ টাইমস ডেস্ক:
  • সময় কাল : শনিবার, ১৭ ডিসেম্বর, ২০২২
  • ২৪ বার পড়া হয়েছে

পদ্মা সেতুকে ঘিরে দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে শিল্পায়নের জন্য ব্যাপক পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করপোরেশন (বিসিক)। এ লক্ষ্যে দেশের দক্ষিণাঞ্চলের জেলাগুলোয় পরিবেশবান্ধব শিল্পায়নের লক্ষ্যে একটি টেকসই শিল্পায়নের উন্নয়ন মহাপরিকল্পনা প্রণয়নের কার্যক্রম গ্রহণ করেছে। দেশের দক্ষিণাঞ্চলের ২১ জেলার জেলা প্রশাসকগণ সংশ্লিষ্ট অঞ্চলভিত্তিক কর্মপরিকল্পনা প্রস্তুত করে বিসিক বরাবর প্রেরণ করেন।

সম্প্রতি রাজধানীর তেজগাঁওস্থ বিসিক ভবনে এ বিষয়ে একটি কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। কর্মশালায় মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন মহাব্যবস্থাপক, অখিল রঞ্জন তরফদার ও উপ-মহাব্যবস্থাপক ড. মো. ফরহাদ আহম্মেদ।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শিল্প সচিব জাকিয়া সুলতানা। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিসিক চেয়ারম্যান মুহ. মাহবুবর রহমান। কর্মশালায় শিল্প মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধিগণ ও এর আওতাধীন বিভিন্ন দফতর-সংস্থার প্রতিনিধিগণ, বিসিক আঞ্চলিক কার্যালয়, ঢাকা ও খুলনার আঞ্চলিক পরিচালক, বিসিক প্রধান কার্যালয়ের শাখা প্রধানগণ ও দক্ষিণবঙ্গের ২১টি জেলার বিসিক জেলা কার্যালয়ের প্রধানগণ উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিল্প সচিব জাকিয়া সুলতানা বলেন, বিসিক জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হাতে গড়া একটি প্রতিষ্ঠান। পদ্মা সেতুকেন্দ্রিক দেশের দক্ষিণাঞ্চলের জেলাগুলোয় পরিবেশবান্ধব শিল্পায়নের লক্ষ্যে বিসিকের এই কর্মশালা অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ। যেসব অঞ্চলে শিল্পের যেসব কাঁচামাল সহজলভ্য আমি মনে করি সেসব অঞ্চলে সে ধরনের শিল্প প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলতে পারলেই কেবল দেশের উন্নতি সম্ভব।

এ ছাড়াও শিল্প উদ্যোক্তাদের সঠিক ঋণ সহায়তার মাধ্যমেও শিল্প প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলার ক্ষেত্রে বিসিক সহযোগিতা প্রদান করতে পারে। লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং সেক্টরের উন্নতিকল্পে বিসিককে আরও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে হবে। প্রকল্প বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে ফিজিবিলিটি স্টাডির বিষয়ে গুরুত্ব প্রদান করা প্রয়োজন। কৃষি জমির ক্ষতিসাধন করে শিল্প কারখানা নির্মাণের ক্ষেত্রেও সতর্ক থাকার পরামর্শ প্রদান করেন। বিসিকের ১৫টি দক্ষতা উন্নয়ন কেন্দ্রের পাশাপাশি সম্ভব হলে প্রতিটি জেলায় একটি করে দক্ষতা উন্নয়ন কেন্দ্র স্থাপনের উদ্যোগ গ্রহণ করা যেতে পারে। তিনি আরও বলেন, যেকোনো পরিকল্পনা গ্রহণের ক্ষেত্রে পরিকল্পনাটি দেশের জিডিপিতে কী পরিমাণ অবদান রাখতে পারবে; এ বিষয়টি মাথায় রাখতে হবে। পরিশেষে তিনি বলেন, যদি আমরা দেশপ্রেম এবং যার যার অবস্থান থেকে কাজ করি তাহলে প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত ভীষণ-২০৪১ সফল করা সম্ভব হবে।

সভাপতির বক্তব্যে বিসিক চেয়ারম্যান, পদ্মা সেতুকেন্দ্রিক দেশের দক্ষিণাঞ্চলের জেলাগুলোয় পরিবেশবান্ধব শিল্পায়নের লক্ষ্যে যে মহাপরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে তার একটি খসড়া প্রস্তাব কর্মশালা শেষে সচিব, শিল্প মন্ত্রণালয়ের কাছে উপস্থাপন করা হবে এবং এ বিষয়ে সচিবের সহযোগিতা কামনা করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন....

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরও খবর
এই নিউজ পোর্টাল এর  কোন লেখা,ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি ও দণ্ডনীয় অপরাধ।
Design & Developed by Freelancer Zone
themesba-lates1749691102