• বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ১১:৫০ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
ঈদের ২য় দিনে শতভাগ কোরবানির বর্জ্য অপসারণ ডিএনসিসির বিসিক চামড়া শিল্প নগরীর সিইটিপি প্রস্তুত : শিল্প সচিব আজ থেকে নতুন সময়সূচিতে চলবে সরকারি অফিস হাসপাতাল ভিজিট করে ডাক্তার হিসেবে লজ্জা লাগছে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী এবার আছাদুজ্জামানের দুর্নীতি তদন্তে নামছে দুদক? কবি অসীম সাহার মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক সেন্টমার্টিন দ্বীপ নিয়ে স্বার্থান্বেষী মহলের গুজবে বিভ্রান্ত হবেন না: আইএসপিআর ঈদ কেন্দ্র করে বাড়ল রিজার্ভ চামড়া কেনায় মিলছে ২৭০ কোটি টাকা ঋণ দুই সিটিতে কুরবানির বর্জ্য অপসারণে প্রস্তুত ১৯ হাজার কর্মী দুর্নীতি করে, কাউকে ঠকিয়ে সফল হওয়া যায় না: এলজিআরডি মন্ত্রী আসুন ত্যাগের মহিমায় দেশ ও মানুষের কল্যাণে কাজ করি: প্রধানমন্ত্রী বিজিবি পুলিশকে সতর্ক থাকার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে স্মার্ট হচ্ছে কৃষি জুনের ১২ দিনে প্রবাসীরা ১৪৬ কোটি ডলার রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন পদ্মা সেতুতে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ, বঙ্গবন্ধুতে নতুন রেকর্ড পাস হতে পারে ঋণের কিস্তি ছাড়ের প্রস্তাব সারা দেশে অভিযানের নির্দেশ জনশক্তি নিতে আজারবাইজানকে অনুরোধ সরে গেছে মিয়ানমারের জাহাজ

তথ্যপ্রযুক্তি খাতে করারোপ হচ্ছে না

সিরাজগঞ্জ টাইমস / ৩৭ বার পড়া হয়েছে।
সময় কাল : মঙ্গলবার, ২১ মে, ২০২৪

আগামী বাজেটে তথ্যপ্রযুক্তি খাতে করারোপ হচ্ছে না বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান।

সোমবার (২০ মে) রাজধানীর এক পাঁচ তারকা হোটেলে বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেসের (বেসিস) ২০২৪-২৬ মেয়াদের নবনির্বাচিত কার্যনির্বাহী কমিটির অভিষেক অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।

তিনি বলেন, আগামী বাজেটেও কর অব্যাহতি সুবিধা বহাল থাকবে, তবে এবারের বাজেট ঘোষণায়, কোন অর্থবছর থেকে এ খাতে কর বসবে তা স্পষ্টভাবে ঘোষণা দেয়া হতে পারে।

ডিজিটাল থেকে স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে ২০১১ সাল থেকে তথ্যপ্রযুক্তি খাতের ২৭টি ডিজিটাল সেবায় কর অব্যাহতি সুবিধা দিয়ে আসছে সরকার। এই অর্থবছরে ১৩ বছর ধরে চলা কর ছাড়ের সুবিধা শেষ হচ্ছে কিনা তা নিয়ে একটি দোলাচাল চলছিল। তবে শেষ পর্যন্ত এ বিষয়ে সুনির্দিষ্ট মতামত দিলেন প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ বিষয়ক উপদেষ্টা।

তিনি আরো বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, সরকারতো এইখাতে সারাজীবন কর অব্যাহতি দিতে পারে না। সেখানে আমি তাকে বলেছি, হঠাৎ করে এভাবে এই সুবিধা উঠিয়ে নিলে ব্যবসায়ীদের সংকটের মধ্যে পড়তে হবে। তার চেয়ে ঘোষণা দিয়ে কবে থেকে এই কর ধার্য করা হতে পারে সেটা আমরা জানিয়ে দিতে পারি। পর্যায়ক্রমে এই খাতের ট্যাক্স বাড়ানো যেতে পারে।’

তিনি আরো বলেন, কর অব্যাহতি অনেক ছোট সমস্যা। ইনোভেশনে আমাদের ব্যবসায়ীদের আরো মনোযোগ দেয়া উচিত। পাশাপাশি, আমাদের এই খাতের উন্নয়নে কি কি পলিসি ও সহযোগিতা সরকারের পক্ষ থেকে দেয়া যেতে পারে তা নিয়ে ভাবতে হবে। সে জায়গায় সরকার সহায়তা দিতে পুরোপুরি প্রস্তুত।

সালমান এফ রহমান বলেন, গার্মেন্টস খাত যে রাস্তায় হেঁটেছে, সফটওয়্যার ও প্রযুক্তিখাতও সেই রাস্তা ধরে হাঁটছে। আমাদের আন্তর্জাতিক বাজারে আরও বড় মার্কেট ধরার মতো সক্ষমতা আছে। তবে সেই ব্যাপারে যথেষ্ট সচেতন নই আমরা। এই খাতগুলোর অনেক প্রতিবন্ধকতা সফলভাবে পার হলেও, খাতের সুদূরপ্রসারী উন্নয়নে পরবর্তী ধাপগুলো চিন্তা করা প্রয়োজন।

এছাড়াও অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী আহসানুল ইসলাম টিটু, বাংলাদেশ শিল্প ও বণিক সমিতি ফেডারেশনের (এফবিসিসিআই) সভাপতি মাহবুবুল আলম, বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেসের (বেসিস) সভাপতি রাসেল টি আহমেদ, বেসিসের সদস্যরাসহ, খাত সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীরা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর