শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ০৫:৫০ পূর্বাহ্ন

ছাত্রের চাকরির পরীক্ষা দিলেন শিক্ষক, ভাইবা দিতে এসে ধরা

অনলাইন ডেস্ক :
  • সময় কাল : রবিবার, ২৮ আগস্ট, ২০২২
  • ৫৮ বার পড়া হয়েছে

রাজশাহী জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে অফিস সহায়ক পদের চাকরির নিয়োগ পরীক্ষায় অসুদপায় অবলম্বন করার দায়ে এক যুবককে আটক করা করেছে।

শনিবার (২৭ আগস্ট) সন্ধ্যায় পরীক্ষা চলাকালে সময়ে তাকে আটক করে পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক। এ সময় ভ্রাম্যমাণ আদালতে তাকে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

দণ্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তি রাজশাহী জেলার বাগমারা উপজেলার গঙ্গানারায়ণপুর গ্রামের মমতাজুল ইসলামের ছেলে সাইমুম হাসান (২৫)। তিনি চাঁপাইনবাবগঞ্জের একটি কলেজ থেকে মনোবিজ্ঞানে স্নাতক পাস করেন ২০১৯ সালে। তার বাবা একজন কলেজ শিক্ষক।

রাজশাহীর জেলা প্রশাসকের কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, মোট ৩৪টি পদের জন্য সম্প্রতি নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। এর মধ্যে ১৩টি পদ অফিস সহায়কের। সাইমুম ছিলেন এ পদেরই প্রার্থী।

আটককৃত সাইমুম জানান, প্রাইভেট পড়তে গিয়ে রাজশাহীর কাশিয়াডাঙ্গা এলাকার মো. ওয়ালিদ নামের শিক্ষকের সঙ্গে তার পরিচয় হয়। সেই ওয়ালিদ-ই সম্প্রতি তার চাকরির লিখিত পরীক্ষা দিয়ে যান। এতে তিনি পাস করেন।

রাজশাহী জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিল জানান, আজ শনিবার বিকেল থেকে লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে মৌখিক পরীক্ষা নেওয়া হচ্ছিল। অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) কল্যাণ চৌধুরীসহ ভাইভা বোর্ডের সদস্যরা সব প্রার্থীরই লিখিত পরীক্ষার খাতার সঙ্গে মৌখিক পরীক্ষার সময় হাতের লেখা মিলিয়ে দেখছিলেন। এ সময় সাইমুমের হাতের লেখা লিখিত পরীক্ষার খাতার সঙ্গে মেলেনি। এরপর জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে তিনি প্রক্সি পরীক্ষার্থী নিয়ে উত্তীর্ণ হওয়ার কথা স্বীকার করেন।

তিনি আরও জানান, আটককৃত পরীক্ষার্থী নিজে যে খাতায় লিখেছেন, তাতে খাতায় শূন্য পেয়েছেন। আর তার নামে অন্যজন যে খাতা জমা দিয়ে গেছেন, তিনি খাতায় সর্বোচ্চ নম্বর পেয়েছেন। কিন্তু মৌখিক পরীক্ষায় মূল চাকরি প্রত্যাশী কোনো প্রশ্নের উত্তর দিতে পারছিলেন না। এই অপরাধের সাইমুমকে ভ্রাম্যমাণ আদালতে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন....

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরও খবর
এই নিউজ পোর্টাল এর  কোন লেখা,ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি ও দণ্ডনীয় অপরাধ।
Design & Developed by Freelancer Zone
themesba-lates1749691102